কনটেন্ট রাইটিং কি এবং কিভাবে কন্টেন্ট রাইটিং শুরু করা যায়

কনটেন্ট রাইটিং!

বিষয়টি পরিচিত মনে হচ্ছে কি?

বর্তমানে ডিজিটাল ক্ষেত্রে কনটেন্ট রাইটিং একটি প্রয়োজনীয় বিষয় যা দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে।

বর্তমানে ডিজিটাল ক্ষেত্রে কনটেন্ট রাইটিং(content writing) একটি প্রয়োজনীয় বিষয় যা দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। অনলাইন ওয়েবসাইটের পরিমাণ দিন দিন বেড়ে চলায় প্রয়োজন হচ্ছে ভালো মানের কনটেন্টের।

বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটেও বিষয়টা ভিন্ন নয়। এমন ওয়েবসাইট পাওয়া যাবে, যারা তাদের সাইটের জন্য অভিজ্ঞ ও দক্ষ মানের কনটেন্ট রাইটার খুঁজছেন।।

কনটেন্ট রাইটিং কী?

কনটেন্ট রাইটিং হলো যেকোন তথ্যবহুল বিষয় বা কোন পণ্যেকে বিস্তারিতভাবে উপস্থাপন করা।

আরো সহজ ভাষায় বলতে গেলে, একটা নির্দিষ্ট বিষয় সম্পর্কে নিজের মতো করে লেখাকেই সেই বিষয়ের কনটেন্ট রাইটিং বলে।

একজন কনটেন্ট রাইটার নিজস্ব সৃজনশীলতা, সৃষ্টিশীল ভাবনা ও নতুনত্বের সাহায্যে একটি সমৃদ্ধ কনটেন্ট তৈরির মাধ্যমে মানুষের দৃষ্টিভঙ্গিকে প্রভাবিত ও ধারণা পরিবর্তন করতে পারে।

তাই ডিজিটাল মার্কেটিং থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ,সকল ক্ষেত্রে content writing এর প্রয়োজনীয়তা লক্ষণীয়।

কিভাবে কন্টেন্ট রাইটিং শুরু করা যায়

কনটেন্ট রাইটিং জন্য কী কী বিষয়ের লক্ষ্য রাখা প্রয়োজন।

১. ভাষায় দক্ষতা:

আপনি যে ভাষাতেই কনটেন্ট লিখবেন সে ভাষায় আপনার দক্ষতা থাকতে হবে, ভাষার উপরে দক্ষতা না থাকলে আপনি কখনোই সেই লেখাটা সুন্দরভাবে উপস্থাপন করতে পারবেন না।

আর ভাষায় দক্ষতা আনার জন্য আপনাকে অনেক চর্চা করতে হবে পড়াশোনার মাধ্যমে।

২.বিষয়টির উপর পর্যাপ্ত জ্ঞান :

আপনি যে বিষয়ের উপর কনটেন্ট লিখবেন সেই বিষয়ে আপনার পুরোপুরি ধারণা থাকতে হবে।পর্যাপ্ত তথ্যের সন্ধান থাকতে হবে তাহলেই আপনি কনটেন্ট টি সুন্দরভাবে উপস্থাপন করতে পারবেন।

৩.ভাষার স্বাবলীল ব্যবহার:

অনেক কঠিন শব্দ ব্যবহার করে কনটেন্ট লেখার কোন প্রয়োজন নেই।সহজ,স্বাবলীল ভাষায় আপনার কনটেন্ট টি উপস্থাপন করুন যেন আপনার পাঠকরা লেখাটি সহজেই বুঝতে পারে এবং লেখায় আঞ্চলিক ভাষার ব্যবহার পরিহার করুন।

৪. সঠিক বানান:

লেখার মধ্যে গুরুত্ব দিতে হবে বানানের দিকে।আপনার কনটেন্ট যেন কোনরুপ ভুল বানান না থাকে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে অবশ্যই।

৫. আকর্ষণীয় কনটেন্ট লেখা:

আপনার content writing এমন হবে যেন শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত ভাষার আকর্ষণ থাকে যা পাঠকের পড়ার আগ্রহ বাড়ায়। এর মানে হলো আপনার লেখা দিয়ে পাঠককে মুগ্ধ করে রাখার মতো একটা বিষয়। আবার লেখাটিতে অপ্রয়োজনী কথা দিয়ে অনেক বড় করবেন না এতে পাঠক মনোযোগ হারাবে এবং আপনার লেখাটি পড়ার আগ্রহও হারাবে।

কোন কনটেন্ট লেখার জন্য আপনাকে অবশ্যই দক্ষ হতে হবে,শিখতে হবে,জানতে হবে আর দক্ষতা অর্জনের জন্য এখন থেকেই নিয়মিত পড়াশোনা করার অভ্যাসটা গড়ে তুলতে হবে।

কনটেন্ট রাইটিং জন্য নিচের পয়েন্টগুলো লক্ষ্য রাখবেন।

(১) picture your article topic

(২) Address your audience needs

(৩) রিসার্চ করুন

(৪) Use article introduction

(৫) Writ compelling headlines

(৬) Short Paragraph

(৭) Add related image to article

(৯) Use bullet points & numbers

আপনার এই পয়েন্টগুলো লক্ষ্য করে কনটেন্ট লিখবেন। তবে আরও কিছু বিষয় থাকলেও এগুলো মেজর বিষয়গুলোর মধ্যে অন্যতম।

কনটেন্ট রাইটিং ও ব্লগিং শিখে আপনি ৫ ভাবে আয় করতে পারবেনঃ

• ফ্রিল্যান্সার হিসেবে কনটেন্ট রাইটিং এর কাজ করে

• ব্লগিং ওয়েবসাইট থেকে এডসেন্স এর মাধ্যমে ডলার আয় করতে পারবেন

• ব্লগিং ওয়েবসাইট তৈরি করে তা বিক্রির মাধ্যমে আয় করতে পারবেন

• ওয়েবসাইট ফ্লিপিং এর বিজনেস করে

• ইডুকেটরিতে কনটেন্ট রাইটার হিসেবে জব নিয়ে

• ব্যাকলিংক বিক্রি করে, লিড সেল করে বা এফিলিয়েট মার্কেটিং করে

গুগোলে যেকোন সার্চ করলে যে লাক্ষ লাক্ষ ওয়েবসাইট আমরা দেখতে পাই এগুলো সব ই কোন না কোন কনটেন্ট রাইটার এর লেখা, আর এসব ওয়েবসাইট থেকে এড, সিপিএ কিংবা এফিলিয়েট মার্কেটিং এর মাধ্যমে তারা মাসে কয়েক হাজার ডলার পর্যন্ত আয় করছেন। আবার ওয়েবসাইট ও বিক্রি হচ্ছে এক থেকে আট বা দশ হাজার পর্যন্ত ডলার মূল্যে।

আরও জানুন এসইও কি এখানে ক্লিক করুন

একটি ওয়েবসাইট গুগোল এর ফার্স্ট পেইজ এ র‍্যাংক করাতে পারলে আপনার আয়ের অভাব হবে না।আর এই আয়ের জন্যই আপনার দরকার কনটেন্ট রাইটিং ও ব্লগিং এর দক্ষতা।

সবশেষে একটা বিষয় মাথায় রাখবেন, ভাষার জ্ঞান আবশ্যিক। যে ভাষাতেই লিখবেন তা যেন সুন্দর ও সহজবোধ্য হয়। এ কারণে একটা কনটেন্ট লিখতে আপনাকে আপনাকে প্রচুর পড়তে হবে এবং রিসার্চ করতে হবে। আর তখন নিজেই বুঝে যাবেন কোন লেখাটা আপনার কাছে ভালো লেগেছে।

অনলাইনে যাদের লেখা আপনার ভালো লাগবে সেই লেখকের লেখা অনুসরণ করুন। যে বিষয় নিয়ে লিখতে চান, সে সম্পর্কে যথেষ্ট জ্ঞান রাখুন। আপনার সাফল্য নিশ্চিত।

প্রিয় পাঠক, ইনপিক্সেল আইটি তে আপনি কোন বিষয়ে লেখা চান, তা জানিয়ে নিচে কমেন্ট করুন।

One comment

  1. Thanks for finally writing about > কনটেন্ট রাইটিং কি এবং কিভাবে কন্টেন্ট রাইটিং শুরু করা যায় < Liked it!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *